যৌতুক না দেয়ায় গৃহবধূ খুন

../news_img/image_178699_0.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: কুমিল্লায় যৌতুক না দেয়ায় হনুফা আক্তার ময়না নামে এক সন্তানের জননীকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার রাতে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের কটপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার সকালে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিহত হনুফা ওই গ্রামের প্রবাস ফেরত মোঃ শামীমের স্ত্রী। ঘটনার পর থেকে শামীমসহ পরিবারের লোকজন পলাতক।

চৌদ্দগ্রাম থানার এস আই মোঃ ইব্রাহিম জানান, নিহত হনুফার লাশ উদ্ধার শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গলায় ফাঁসের চিহ্ন আছে।

নিহত হনুফার ভাই হারেছ মোল্লা জানান, কটপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে মোঃ শামীমের সঙ্গে হনুফা আক্তার ময়নার (২০) গত বছরের জানুয়ারি মাসে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় যৌতুকের দাবিতে শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে নির্যাতন করতো। এরই মধ্যে তাদেরকে ৭৩ হাজার টাকা মূল্যের ফার্নিচার দেয়া হয়।

হারেছ মোল্লা বলেন, “সোমবার রাত ১০টার দিকে তার বোন হনুফা মোবাইলে কল করে বলে, তার স্বামী শামীম ডুবাই যাবে। এজন্য ২ লাখ টাকা প্রয়োজন। দাবিকৃত টাকা না দিলে আমাকে নির্যাতন করে পাঠিয়ে দিবে। রাত আনুমানিক ১২টার সময় ওই বাড়ির এক মহিলা ফোন করে হনুফার মৃত্যুর খবর জানায়। ভোরে আমিসহ পরিবারের লোকজন ওই বাড়িতে গিয়ে দেখি- হনুফার বসত ঘরের দরজা লাগানো।”

স্থানীয়রা জানান, লাশের গলায় ভিন্ন ধরনের একটি দাগ দেখা গেছে।